কুমিল্লায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীসহ ৪ জনকে গণপিটুনি

কুমিল্লায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীসহ ৪ জনকে গণপিটুনি

কুমিল্লায় ছেলেধরা সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীসহ ৪ জনকে গণপিটুনি দেওয়া হয়েছে। রবিবার (২১ জুলাই) সকালে আদর্শ সদর উপজেলার আমড়াতলী ইউনিয়নের ধুতিয়া দিঘীরপাড় এলাকায় ৩ জনকে এবং মাঝিগাছা এলাকায় একজনকে গণপিটুনি দেওয়া হয়েছে।

গণপিটুনিতে আহতরা হলেন, ধুতিয়া দিঘীরপাড় এলাকায় কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বেজোড়া গ্রামের বাসিন্দা মোঃ. আবুল কালাম (৭৪) ও তার রত্না (৫০) ও একই এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৮)। মাঝিগাছা এলাকায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন (২৮)।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানাধীন ছত্রখিল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) তপন কুমার বাকচী তথ্যটি নিশ্চিত করে জানান, আবুল কালামসহ তার তিন জন সকালে আমড়াতলী স্কুলের পাশের একটি বাড়ির সামনে গিয়ে একটি শিশুকে ডাক দেয়। এ সময় স্থানীয়রা ছেলেধরা সন্দেহে তাদের গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে ফাঁড়ি থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে।
অপরদিকে, সকাল ১১টার দিকে আদর্শ সদর উপজেলার মাঝিগাছা এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে আরিফ নামে আরেকজনকে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। আহত আরিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার নয়নপুর এলাকার আব্দুর নূর স্বর্ণকারের ছেলে।
কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ. সালাউদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Comments