গুজবে কান না দিয়ে পুলিশে ফোন, গণপিটুনি থেকে বাঁচল প্রতিবন্ধী নারী

গুজবে কান না দিয়ে পুলিশে ফোন, গণপিটুনি থেকে বাঁচল প্রতিবন্ধী নারী

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায় ছেলে ধরা গুজবে কান না দিয়ে থানা পুলিশের মাধ্যমে এক মানসিক প্রতিবন্ধী নারীকে স্বজনদের কাছে তুলে দেয়া হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে মঞ্জুআরা বেগম (৪৯) নামের ওই প্রতিবন্ধীকে আনুষ্ঠানিকভাবে তার স্বজনদের কাছে তুলে দেন মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম।

ছেলে ধরা সন্দেহে উদ্ধার হওয়া মঞ্জুআরা বেগম নামের প্রতিবন্ধী ওই নারী নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতার গ্রামের আনোয়ার হোসেন খোকনের স্ত্রী। তিনি নিজ বাড়ি থেকে এক বছর আগে হারিয়ে যায়।

মোরেলগঞ্জ থানার ওসি কে এম আজিজুল ইসলাম জানান, শনিবার রাতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার জিউধরা ইউনিয়নের লক্ষিখালী গ্রামে প্রতিবন্ধী নারীকে ঘুরতে দেখে ও কথাবার্তায় সন্দেহ হলে স্থানীয়রা পুলিশে খরব দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে তার কাছ থেকে গ্রামের ঠিকানা জানা যায়। মঞ্জুআরা বেগমকে রাতেই তার নিকটতম আত্মীয় খুলনা মহানগরীর ৩১ নং ওয়ার্ডর বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেন এর কাছে হস্তান্তর করা হয়।
ওসি আরো জানান, গত কয়েক দিন ধরে পুলিশ প্রশাসনের প্রচারাভিযানের ফলে প্রতিবন্ধী নারী গণপিটুনির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। এটা আমাদের একটা বড় সাফল্য যে পুলিশ প্রশাসনের প্রচারাভিযানে সাধারণ মানুষ সাড়া দিয়েছে।

Comments