ঘরে বসেই খোলা যাবে সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট

ঘরে বসেই খোলা যাবে সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট

এখন থেকে যে কোন গ্রাহক ঘরে বসেই সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট খুলতে পারবেন। করোনার প্রভাব থেকে গ্রাহকদের সুরক্ষা দিতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ পদক্ষেপ নিয়েছে। একাউন্ট খোলার জন্য গ্রাহকদেরকে স্বশরীরে ব্যাংকের কোন শাখায় যাওয়ার দরকার নেই।

গ্রাহকের ছবি ও ব্যক্তিগত তথ্য অটোমেটিক পদ্ধতিতে যাচাই-বাচাই করার জন্য  সোনালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এখন থেকে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে সফটওয়্যার ‘পরিচয়’ ব্যবহার করবে। এ সফটওয়্যার গ্রাহকের যে কোন তথ্য (কেওয়াইসি) নিমিষেই বাংলাদেশ জাতীয় ডিজিটাল আর্কিটেকচার (বিএনডিএ) এর সাথে অটোমেটিক মিলিয়ে নিতে পারে।

সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের সিইও এন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. আতাউর রহমান প্রধান বলেন, এ নতুন বিশ্বে আমরা আমাদের গ্রাহকদের কোন শাখায় না এনেই e-KYC এর আওতায় সোনালী ই-সেবা (Sonali eSheba) Apps ব্যবহার করে সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার সুবিধা দেয়ার জন্য এ পদক্ষেপ নিয়েছি। সময়ের সাথে আমরা এ সুবিধা আরও বর্ধিত করবো।

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড পরিচালনা পর্ষদ চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী বলেন, এটা সময়ের দাবি। পরিবর্তীত এ পরিস্থিতিতে গ্রাহকের দোরগোড়া থেকে তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা প্রদানের নিমিত্তে আমরা অনলাইনে ব্যাংক হিসাব খোলার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। এতে গ্রাহক ঘরে বসে মাত্র ২ মিনিটে  সোনালী ব্যাংকের হিসাব খুলতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তার আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রত্যক্ষ উৎসাহে এবং আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সক্রিয় সহযোগিতায় ব্যবহার বান্ধব ডিজিটালাইজড ফিনান্সিয়াল সিস্টেম বাস্তবায়নে আমরা এরূপ কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, আইসিটি মন্ত্রণালয়, ‘পরিচয়’ এবং বাংলাদেশ জাতীয় ডিজিটাল আর্কিটেকচার এর মধ্যে অংশীদারীত্বের ফলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত e-KYC পদ্ধতি বাস্তবায়নের দুর্দান্ত উদাহরণ। সোনালী ব্যাংকের সময়োপযোগী সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে পলক বলেন, ডিজিটাল পদ্ধতিতে সহজে সেবা প্রদানের জন্য ’পরিচয়’ গেটওয়ে ব্যবহার করে গ্রাহকদের দোরগোড়া থেকে কিভাবে আধুনিক ব্যাংকিং প্রদান করতে হয় তা দেখিয়ে দিয়ে ব্যাংকিং জগতে সোনালী ব্যাংক উদাহরণ সৃষ্টি করলো।

Comments