বাবুনগরীর নেতৃত্বেই হেফাজতের নতুন কমিটি

বাবুনগরীর নেতৃত্বেই হেফাজতের নতুন কমিটি

জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও নুরুল ইসলাম জিহাদীকে মহাসচিব করে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নতুন কমিটি আজ ঘোষণা করা হতে পারে। এ জন্য আজ সোমবার ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, ইতিমধ্যে ৩৮ সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। আবার ৫৮ সদস্যের কমিটিরও একটা খসড়া করা হয়েছে। গতকাল রোববার বিকেলে হেফাজতের নেতারা জানান, কমিটি ঘোষণার আগমুহূর্ত পর্যন্ত বিভিন্ন পদে সংযোজন-বিয়োজন হতে পারে। তবে কমিটির আকার সর্বোচ্চ ৪০ সদস্যের মধ্যে রাখার সম্ভাবনা বেশি।
বিজ্ঞাপন

প্রস্তাবিত কমিটিতে প্রধান উপদেষ্টা রাখা হচ্ছে মাওলানা মহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীকে। নতুন কমিটিতে হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির প্রয়াত শাহ আহমদ শফীর বড় ছেলে মাওলানা মো. ইউসুফকে রাখা হচ্ছে। শুরুতে খসড়া কমিটিতে তাঁর নাম সহকারী মহাসচিব পদে লেখা ছিল। তবে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, শেষ মুহূর্তেও কমিটিতে সংশোধনী হতে পারে। মো. ইউসুফ অন্য কোনো পদও পেতে পারেন।

নতুন কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক হতে যাচ্ছেন মীর ইদ্রিস। তিনি এর আগে বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ছিলেন। আজ নতুন কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে নিশ্চিত করেন মীর ইদ্রিস। জানতে চাইলে তিনি গতকাল বিকেলে বলেন, কমিটি হবে সর্বোচ্চ ৪০ জনের। আমির, মহাসচিব ও প্রধান উপদেষ্টা ছাড়া বাকিদের বিষয়ে কমিটি ঘোষণার আগপর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। ঘোষণা হলে জানবেন, কারা রয়েছেন কমিটিতে।

প্রস্তাবিত বা খসড়া কমিটিতে কারাবন্দী কোনো হেফাজত নেতাকে রাখা হয়নি। কারাগারে থাকা দুজন নেতার স্বজনেরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সরকারের চাপ থেকে বাঁচার জন্য কিছু নেতা কারাবন্দী নেতাদের বাদ দিয়ে নতুন কমিটি করছেন।

এখন বাবুনগরীর নেতৃত্বে নতুন কমিটি ঘোষণা দিলে আনাস মাদানির অনুসারীরা পাল্টা কমিটি গঠন করবেন বলে গত বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তাঁরা বলেছেন। আনাস মাদানির অনুসারী হিসেবে পরিচিত হেফাজতের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মঈনুদ্দীন রুহী গতকাল বিকেলে বলেন, তাঁরা পাল্টা কমিটি করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

Comments