শাকিব খানের দিন কি শেষ?

শাকিব খানের দিন কি শেষ?

এতদিন ধরা হতো, শাকিব খান মানেই ব্লকবাস্টার হিট সিনেমা। কেননা দীর্ঘদিন যাবৎ পুরো সিনেমা জগৎ একাই নিজের কাঁধে নিয়ে চলছেন এই সুপারস্টার। গত দু’সপ্তাহে ঢালিউডের কিং খান খ্যাত শাকিব খান অভিনীত ও বহুত প্রত্যাশিত দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। একটি হলো প্রবীণ পরিচালক কাজী হায়াৎ-এর ৫০ তম সিনেমা ‘বীর’, অন্যটি হলো শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত ছবি ‘শাহেনশাহ’।

বর্তমান সময়ে করোনাভাইরাস নিয়ে সারা বিশ্ব আতঙ্কিত, আতঙ্কিত তারকা-প্রযোজকরাও। তারপরও তুলনামূলকভাবে বাংলাদেশে এর প্রভাব এখনো তেমন একটা না পড়লেও শাকিব খান-বুবলী জুটির ‘বীর’ ছবিটি আশানুরূপ ব্যবসা করতে ব্যর্থ হয়েছে। অপরদিকে ‘বীর’-এর পরপরই নুসরাত ফারিয়া ও রোদেলা জান্নাতকে নিয়ে ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি মুক্তি পায়। কিন্তু ছবি মুক্তির সময় থেকেই করোনা আতঙ্কের কারণে এটিও ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পায়নি। তাই বলা যায়, দীর্ঘদিন পর শাকিব খান অভিনীত পরপর দুটি ছবি ফ্লপ তালিকায় নাম লেখালো। এর একটি ‘বীর’ ও আরেকটি ‘শাহেনশাহ’।

ফ্লপ তালিকায় থাকার অন্যতম কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে তারকা-প্রযোজক দ্বন্দ্ব! এই ছবিটির প্রযোজক শাপলা মিডিয়ার সঙ্গে শাকিব খানের দীর্ঘ বিবাদ ও দূরত্ব থাকার কারণে কোনো প্রমোশন বা গণমাধ্যমে শাকিব খান তার নিজের এই ছবিটির নামটিও মুখে তোলেননি। অনেকেই মনে করেন ছবি রিলিজের পাশাপাশি মূল তারকারা ছবিটির প্রমোশনের সঙ্গে সম্পৃক্ত না থাকার কারণেই ছবির ব্যবসা ব্যাহত হয়। ‘শাহেনশাহ’ ছবিতে নুসরাত ফারিয়া প্রথমবারের মতো শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন। তাই নুসরাত ফারিয়ার ক্যারিয়ারেও এই ছবিটি নিয়ে উচ্ছ্বাস ছিল বেশ কিন্তু  ছবিটির মহরত অনুষ্ঠানে যতটা তোলপাড় হয়েছিল পরে ছবিটি রিলিজে বিলম্বের কারণে ফলাফল হিসেবে তারকারা ছবিটি নিয়ে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন।

সেই সাথে যুক্ত হলো অন্য খবর! ‘শাহেনশাহ’ নায়িকা রোদেলা জান্নাত বিয়ে করেছেন মডেল সুজনকে। নতুন সংসারের শুরুতেই চলচ্চিত্র প্রসঙ্গে বলেন, ‘চলচ্চিত্রের ব্যাপারে আমার কোনো বাড়তি উত্সাহ নেই। আমি শুরুতেই বলেছিলাম যে, প্রথম ছবিটি রিলিজের পর সেই ছবির ব্যবসার ওপরে সিদ্ধান্ত নেবো যে কী করবো।’

শুধু প্রচার-প্রচারনা:

‘শাহেনশাহ’ ছবিটির প্রচার-প্রচারণায় রোদেলা জান্নাতকে একাই দেখা গেলও অন্যদিকে শাপলা মিডিয়ার নতুন ছবি ‘কমান্ডো’তে আরেক নবাগত জাহারা মিতুর সঙ্গে কলকাতার দেবকে কাস্ট করা হলো। কিন্তু সেখানেও বাধা! করোনা আশঙ্কায় বর্তমানে শুটিং স্থগিত রয়েছে।

বর্তমান সময়ে এই দুটি সিনেমা ফ্লপ হওয়ার জন্য শুধুই কি করোনাভাইরাস দায়ী নাকি পিছনে রয়েছে অভিনয়শিল্পী ও প্রযোজক থেকে এর সঙ্গে জড়িত কলাকুশলীরাও। এক কথায় তারকা-প্রযোজক দ্বন্দ্ব।

উল্লেখ্য, শাপলা মিডিয়ার নতুন ‘কমান্ডো’ ছবিতে প্রথম কাস্ট হয়েছিলেন শাকিব খান। কিন্তু পরবর্তীতে প্রযোজকের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জের ধরেই কলকাতার ‘দেব’কে এই ছবিতে নেওয়া হয়। তবে শুটিং স্থগিত ও নতুন ছবির ব্যবসায়িক ব্যর্থতার আশঙ্কার চেয়েও বড় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে যারা বড় লগ্নি করে নতুন ছবি রিলিজের জন্য সমসাময়িক তারিখ চূড়ান্ত করেছেন।

কারণ, খুব শিগগিরই মুক্তি পাবে দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত বাপ্পী চৌধুরী ও অপু বিশ্বাস অভিনীত ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু’ এবং চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালিত সিয়াম-পরীমনি অভিনীত ‘বিশ্বসুন্দরী’। তারা প্রত্যেকেই সিনেমাপ্রেমীদের ওপরে ভরসা রেখেই ছবি সাফল্যের দিন গুনছেন। এখন দেখা যাক ছবি মন্দার এই সময়ে করোনা আতঙ্ককে হারিয়ে নতুন ছবিগুলো কেমন ব্যবসা করে। কারণ একের পর এক ব্যবসা মন্দা নতুন লগ্নিকারীদেরও আরও গভীর সঙ্কটের ভেতরে ফেলে দিবে না তো!

Comments