সিঙ্গাপুরে আহত ঋতুপর্ণা

সিঙ্গাপুরে আহত ঋতুপর্ণা

টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অতিমারি করোনার মধ্যে সিঙ্গাপুরে পরিবারের সঙ্গে রয়েছেন। আর সেখানেই সাইকেল চালাতে গিয়ে কব্জিতে মোচড় লেগে আহত হয়েছেন তিনি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

জানা গেছে, লকডাউনে নিজেকে ফিট রাখতেই নিয়মিত সাইকেল চালানোর অভ্যেস করেন ঋতুপর্ণা।ঋতুপর্ণার ভাষ্য, ‘চলন্ত সাইকেল নিয়ে ডান দিকে ইউ টার্ন নিতে গিয়েছিলাম। তখনই সামলাতে না পেরে মোচড় লাগে ডান হাতের কব্জিতে। সঙ্গে সঙ্গে অবশ হয়ে যায় হাত, আঙুল। কব্জির পাশাপাশি ডান হাতের তৃতীয় আঙুলেও চোট পেয়েছি।’

দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য হাতে আকুপাংচার করাচ্ছেন ঋতুপর্ণা। তাতে ব্যথা অনেকটাই কমেছে।‘শ্বেতপাথরের থালা’র মাধ্যমে রূপালি পর্দায় ঋতুপর্ণার অভিষেক হয়। সেটি ১৯৯৫ সালে কথা। ছবিতে সহ-অভিনেত্রীর চরিত্রে কাজ করেন তিনি। প্রভাত রায়ের ছবিটি ওই বছর শ্রেষ্ঠ বাংলা ছবি হিসাবে জাতীয় পুরস্কার লাভ করে।

এরপর সুজন সখী, নাগপঞ্চমী, মনের মানুষ ও সংসার সংগ্রাম ছবির মাধ্যমে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন ঋতুপর্ণা।ঋতুপর্ণ ঘোষের দহন (১৯৯৭), উৎসব (২০০০), অপর্ণা সেনের পারমিতার একদিন (২০০০) ও বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের মন্দ মেয়ের উপাখ্যান (২০০২) ছবিতে তার অভিনয় বোদ্ধা মহলের প্রশংসা অর্জন করে।এছাড়া ‘দহন’ ছবিতে ধর্ষণের শিকার এক নববিবাহিতা নারীর চরিত্রে অভিনয় করে ১৯৯৮ সালে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কার অর্জন করেন তিনি।

Comments