৮ হাজার চিকিৎসক-নার্স নিয়োগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

সোমবার (২৬ জুলাই) মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি আরও জানান, টিকা কার্যক্রম আরও জোরদার করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখন ওয়ার্ড পর্যায়ে জোর দেওয়া হবে।
এছাড়া প্রধানমন্ত্রী বিধিনিষেধ কঠোরভাবে বাস্তবায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
টিকার বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এক সময় চরম অনিশ্চয়তা তৈরি হলেও দেশে এখন পর্যাপ্ত পরিমাণ করোনা ভ্যাকসিন হাতে আছে। অক্সফোর্ডের তিন কোটি, সিনোফার্মের তিন কোটি, জনসনের সাত কোটি, রাশিয়ার এক কোটি, কোভ্যাক্সের মাধ্যমে ৬ কোটি ৮০ লাখ টিকা সব মিলে ২১ কোটি ডোজের মাধ্যমে ১৪ কোটি বা দেশের ৮০ ভাগ লোককে টিকা দেয়া সম্ভব হবে।
এর মধ্যেই টিকার বয়সসীমা ১৮ বছরে নামিয়ে আনার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। তবে তৃনমূল পর্যায়ে টিকার নিশ্চয়তা দিতে বাড়াতে হবে আরও সক্ষমতা। কেন্দ্র বাড়ানোর পাশাপাশি সহজলভ্য করতে হবে করোনা পরীক্ষা, চিকিৎসা ও টিকাদান।

এদিকে মন্ত্রিসভার বৈঠকে গুরুত্ব পায় লকডাউন মানানোর বিষয়টিও। জনগনের লকডাউন না মানাকে দুঃখজনক জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলছেন, এর ফলে ভুগতে হবে পুরো জাতিকে।
তিনি আরো জানান, ভারত থেকে প্রতি সপ্তাহে ২০০ টন অক্সিজেন আসবে। এছাড়া পুলিশ ভেরিফিকেশান ও মৌখিক পরীক্ষা ছাড়াই দ্রুত ৪ হাজার চিকিৎসক ও ৪ হাজার নার্স নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানা গেছে।
গত ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে দুইশ’র ঘর পেরিয়ে গেছে প্রাণহানি। আর লাগামহীনভাবে ছুটছে করোনা শনাক্তের সংখ্যাও। নিয়ন্ত্রণে আসছে না সংক্রমণ। একদিনে মৃতের সংখ্যা ২২৮ জনে ঠেকেছে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট মৃত ১৯ হাজার ২৭৪ জন।
এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১ হাজার ২৯১ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৬৩৫ জনে।
রোববার (২৫ জুলাই) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৫৮৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ৯ লাখ ৯৮ হাজার ৯২৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ হাজার ৫৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ০৪ শতাংশ।
এর আগে, গতকাল শনিবার (২৪ জুলাই) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৯৫ জনের মৃত্যু হয়। এছাড়া করোনা শনাক্ত হয় ৬ হাজার ৭৮০ জন।

Comments